রেলস্টেশনে প্রবেশে যা মানতে হবে যাত্রীদের



করোনাভাইরাস আক্রান্তে চলতি মাসে সংক্রমণ ও মৃত্যু বিগত মাসগুলোর সব রেকর্ড ভেঙেছে। প্রতিদিন দুইশ’র বেশি মানুষ মারা যাচ্ছেন। ফলে ঈদকে সামনে রেখে ট্রেন চলাচলে রেলওয়ে স্টেশনে প্রবেশকালে যাত্রীদের অবশ্যই মাস্ক ও স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে। স্টেশনে প্রবেশকালে যাত্রীদের মুখে মাস্ক নিশ্চিতে কঠোর অবস্থানে থাকবে বাংলাদেশ রেলওয়ে।

মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) আগামী ১৫ জুলাই থেকে ২২ জুলাই পর্যন্ত কঠোর লকডাউন শিথিল করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

বাংলাদেশ রেলওয়ের উপ-পরিচালক (অপারেশন) মো. রেজাউল হক স্বাক্ষরিত এক নির্দেশনায় বলা হয়েছে, আগামী ১৫ জুলাই থেকে চলা কোন ট্রেনের সাপ্তাহিক ছুটি থাকবে না। ট্রেনের ৫০ শতাংশ টিকিট বিক্রি হবে। যাত্রার ৫ দিন আগের টিকিট কাটা যাবে অনলাইনে। আন্তনগর সকল ট্রেনের স্ট্যান্ডিং টিকিট বিক্রিও বন্ধ থাকবে।

এছাড়া আন্তনগর ট্রেনে কাটারিং সেবা প্রদান ও ট্রেনে রাত্রিকালীন বেডিং সরবরাহের ক্ষেত্রে স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে মানা হবে। টিকিট কালোবাজারি প্রতিরোধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। টিকিট কালোবাজারির সঙ্গে কোন কর্মচারী জড়িত থাকলে কঠোর শাস্তি মূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কমিউটার ও মেইল এক্সপ্রেস ট্রেনের টিকিট স্বাস্থ্যবিধি মেনে কাউন্টার হতে বিক্রি হবে। প্ল্যাটফর্মে প্রবেশকালে যাত্রীদের অবশ্যই মাস্ক পরতে হবে। প্রতিটি কোচ ও ইঞ্জিন চলাচলের পূর্বে স্বাস্থ্যবিধি মোতাবেক জীবাণুমুক্ত করতে হবে।

উল্লেখ, করোনা সংক্রমণ বাড়ায় কঠোর লকডাউনে ১ জুলাই থেকে ১৪ জুলাই পর্যন্ত সারাদেশের সঙ্গে যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল বন্ধ রেখেছিল সরকার। তবে পণ্যবাহী ও আম পরিবহনে ম্যাঙ্গো স্পেশাল ট্রেন চলাচল অব্যাহত ছিলো।

এফএ

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *