বার্সায় আরও ২ বছর থাকবেন মেসি?


কোপা আমেরিকা ও ইউরো শেষ হতে না হতেই ফের ক্লাব ফুটবল খেলায় নজর পড়েছে ফুটবলপ্রেমীদের। ফের মুখেমুখে শোনা যাচ্ছে বার্সা, রিয়া, লিভারপুল, ম্যানসিটি, জুভেন্টাসের গল্প।

তবে কোপা হোক আর ক্লাব ফুটবল হোক, ঘুরিয়ে পেঁচিয়ে আলোচনার কেন্দ্র বিন্দুতে সেই মেসিই।

হবারই কথা। গত মাস ১ জুলাই থেকে ক্লাবহীন মেসি। ফ্রি এজেন্ট হয়ে ঘুরছেন। ঠিক ঘুরছেন বলা ঠিক নয়, তবে বার্সেলোনা এখনও আর্জেন্টাইন খুদেরাজের সঙ্গে চুক্তি করেনি।

এ নিয়ে ব্যাপক দুশ্চিনায় পড়ছে মেসি ও বার্সা সমর্থকরা। কারণ ফ্রি ট্রান্সফারে যে কোনো ক্লাবে যোগ দিতে পারেন আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড।

তবে স্প্যানিশ ও আর্জেন্টাইন মিডিয়ার খবর, নতুন চুক্তিতে সময় লাগলেও মেসি তার প্রিয় ক্লাব বার্সাতেই থাকছেন। তাও দুই বছরের জন্য! ছুটি শেষেই নাকি বার্সার সঙ্গে দুই বছরের নতুন চুক্তির আনুষ্ঠানিকতা সেরে ফেলবেন মেসি। কোপার কারণে চুক্তি নবায়নের ব্যাপারটি ঝুলে ছিল এতদিন।

গত জুন মাসের শেষদিক থেকেই ফুটবল ইস্পানাসহ ইউরোপীয় আরো কিছু গণমাধ্যমে এ খবর প্রকাশ হচ্ছে। যদিও খবরটির সত্যতা দিতে পারেনি কেউ।

তবে এমন খবরে হয়তো খুশিই হবেন বার্সেলোনা সমর্থকরা। নির্ভার থাকতে পারেন।

কিন্তু যে খবরে হতাশা কাটছে না বার্সা সমর্থকদের, আর্থিক দৈন্যদশায় পড়ে মেসির সঙ্গে চুক্তিতে যেতে পারছে না বার্সেলোনা।

একই কারণে মেম্ফিস ডিপাই, সের্হিও আগুয়েরো, এরিক গার্সিয়া ও এমারসনকে দলে টানার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়েও এখন লা লিগায় নিজেদের খেলোয়াড় হিসেবে নিতে পারছে না ক্লাবটি।

কাতালান ক্লাবটি মেসিকে কিনতে খরচ যোগাড়ের জন্য সামুয়েল উমতিতি, মিরালেম পিয়ানিচ, ফিলিপ কুতিনহো ও আতোয়াঁ গ্রিজম্যানকে ছেড়ে দিতে চায়।

এদিকে জানা গেছে, বার্সার সঙ্গে যতদিন চুক্তি হবে না মেসির, ততোদিন ধরে তার প্রতিদিন ১০ লাখ টাকা করে ক্ষতি হবে।

স্প্যানিশ দৈনিক এল মুন্দোর বরাতে ইউরোপের ক্রীড়াভিত্তিক সংবাদমাধ্যম মার্কা জানিয়েছে, বার্সার সঙ্গে কোনো চুক্তি না হওয়ার কারণে প্রতিদিন ১০ হাজার ইউরো করে হারাচ্ছেন মেসি। অর্থাৎ যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ১০ লাখ পাঁচ হাজার টাকা!

এল মুন্দো জানিয়েছে, চুক্তি মোতাবেক প্রতি মৌসুমে বার্সেলোনা থেকে ১৩৮৯ লাখ ইউরো ঘরে নিয়ে ফেরেন ছয় বারের বেলন ডিঅরজয়ী।

সে হিসাবে গত ১ জুলাই থেকে প্রতিদিন ১০ হাজার ইউরো করে ক্ষতি হচ্ছে আর্জেন্টাইন সুপারস্টারের।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *