মোদীর ১০০ কোটি টিকা দেওয়ার দাবি মিথ্যা: মমতা

মোদীর ১০০ কোটি টিকা দেওয়ার দাবি মিথ্যা: মমতা

কলকাতা: ভারতে মোট ১০০ কোটি টিকা দেওয়া হয়েছে ২১ অক্টোবর, এরপরই দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জাতির উদ্দেশে বলেছিলেন, ‘কোভিডের বিরুদ্ধে লড়াইতে আরও শক্তিশালী হলো ভারত। ’

তবে ১০০ কোটি টিকা দেওয়ার দাবি মিথ্যা বলে জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

রোববার (২৪ অক্টোবর) শিলিগুড়ির বাঘাযতীন পার্কের রবীন্দ্র মুক্তমঞ্চে বিজয়া সম্মিলনী অনুষ্ঠানে মমতা বলেন, ‘বলা হচ্ছে, ১০০ কোটি টিকাকরণ হয়ে গিয়েছে। ভারতে মোট জনসংখ্যা ১৩০ কোটি। কীভাবে ১০০ কোটি মানুষকে টিকাকরণ হয়েছে, তা নিয়ে প্রশ্ন রয়ে গিয়েছে। এখন পর্যন্ত ভারতে ২৯ কোটি ৫২ লাখ মানুষ টিকার দুটি করে ডোজ পেয়েছেন। একটাও টিকা পাননি অনেকে। সেই সব মানুষকে টিকা দেওয়ার ব্যবস্থা না করে কৃতিত্বের দাবি করছে। ’

মমতা বলেন, ‘ভারতে ৩৫ কোটি মানুষ এখনও একটিও টিকা পাননি। যারা টিকা পাননি তাদের টিকা না দিয়ে কেন এত ঢাক পেটাচ্ছে। ’

মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ‘ভারতে এখনও ১৮ বছরের নিচে টিকা দেওয়া শুরুই হয়নি। তাহলে কীভাবে দেশের সর্বস্তরের মানুষ টিকা পেলেন?’

পাশাপাশি টিকা বণ্টনেও পশ্চিমবঙ্গকে মোদি সরকার বঞ্চিত করেছে বলেও অভিযোগ করেছেন মমতা। তিনি বলেন, ‘আমাকে কম টিকা দেওয়া হয়েছে। এখন অবদি বাংলা পেয়েছে সাত কোটি টিকা। বলা হচ্ছে, আমরা টিকাকরণে তিন নম্বরে। মহারাষ্ট্র ও উত্তরপ্রদেশ আমাদের থেকে অনেক বেশি টিকা দেওয়া হয়েছে বলেই তারা এগিয়ে। ’

সম্প্রতি ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে ঘোষণা করা হয়, ১৫ কিলোমিটার বাড়িয়ে বিএসএফ’র ক্ষমতা ৫০ কিলোমিটার এলাকা পর্যন্ত করা হয়েছে। এ বিষয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘আমি বিএসএফের বিরুদ্ধে নই। কিন্তু বিভেদের ভাবনা নিয়ে যেসব সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে, তা ভালো নয়। আমরা যেমন প্রতিবেশী রাজ্যের সঙ্গে ভালো সম্পর্ক রেখে চলি, তেমনই ভুটান ও বাংলাদেশের সঙ্গেও আমাদের সম্পর্কও বেশ মধুর। ’

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *