বিজেপিতে যোগ দিলেই শাহরুখের মুক্তি!

বিজেপিতে যোগ দিলেই শাহরুখের মুক্তি!

এর মধ্যেই শাহরুখপুত্রের মাদক মামলায় বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন মহারাষ্ট্রের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ছগন ভুজবল। তিনি মহাজোটের শরিক ন্যাশনাল কংগ্রেস পার্টির মন্ত্রী।

মুম্বাইয়ে নিজের দল এনসিপির এক অনুষ্ঠানে শনিবার (২৩ অক্টোবর) তিনি বলেন, বলিউড অভিনেতা যদি এই মুহূর্তে শাসক দলে নাম লেখান, তবে মুম্বাইয়ের প্রমোদতরী থেকে উদ্ধার হওয়া মাদক, যা নিয়ে নিত্যদিন নতুন নতুন তথ্য সামনে আসছে, তা নিমিষেই চিনির গুঁড়ো বলে প্রতিপন্ন হবে।

সাবেক এই মুখ্যমন্ত্রীর মতে শাহরুখ রাজনৈতিকভাবে বিজেপির সঙ্গে যুক্ত নয় বলেই ছেলেকে নিয়ে হেনস্তার শিকার হতে হচ্ছেন।

বর্ষীয়ান এই নেতা অভিযোগের সুরে আরও বলেন, গুজরাটের মুন্দ্রা পোর্টে ৩ হাজার কেজি হেরোইন বাজেয়াপ্ত করার বিষয়ে নজর না দিয়ে শাহরুখপুত্রের ঘটনায় বেশি উৎসাহী এনসিবি।

বিশেষ আদালতে বেশ কয়েকবার জামিনের আবেদন করলেও জামিন পাননি আরিয়ান খান। তাই বুধবার (২০ অক্টোবর) হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন আরিয়ান। ২৬ অক্টোবর তার জামিনের শুনানি। আরিয়ানের মতে, তার হোয়াটসঅ্যাপে কথোকথনকে ‘ভুল এবং অন্যায়’ ভাবে ব্যাখ্যা করা হয়েছে। প্রমোদতরীর পার্টিতে তার কাছ থেকে কোনো মাদক পাওয়া যায়নি বলেও জানিয়েছে আরিয়ান।

মোট ২০ জনকে গ্রেপ্তার করেছে এনসিবি। আরিয়ানের দাবি, তাদের মধ্যে আরবাজ শেঠ মার্চেন্ট ছাড়া আর কারও সঙ্গেই তার পরিচয় নেই। যে কথোপকথনের ওপর ভিত্তি করে এনসিবি তদন্ত এগোচ্ছে, তার সঙ্গে কোনো ধরনের ষড়যন্ত্রের যোগসূত্র নেই বলেও দাবি করেছেন তিনি।

আরও পড়ুন: আরিয়ানকে ছাড়াই কীভাবে কাটবে শাহরুখের জন্মদিন?

এরই মধ্যে আদালতে ডাক পড়েছে বলিউড অভিনেত্রী অনন্যা পাণ্ডের। এনসিবির আঞ্চলিক পরিচালক সমীর ওখান্ডে নারী কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে অনন্যাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। আইন অনুযায়ী, সূর্যাস্তের পর নারীদের জেরা করা যায় না। তাই শনিবার (২৩ অক্টোবর) দুপুরে আবার অনন্যাকে জেরা করার কথা এনসিবির।

জানা গেছে, আরিয়ানকে জিজ্ঞাসাবাদের সময় এনসিবি সানায়া কাপুরের নাম জানতে পেরেছিল। তাই বলিউড অভিনেত্রী জাহ্নবী কাপুরের কাজিন সানায়াকেও এনসিবি তলব করতে পারে।

বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) প্রশ্নোত্তর শেষে জানা গিয়েছিল, এনসিবির হাতে আসা একটি কথোপকথনে আরিয়ানকে গাঁজার জোগান দেওয়ার আশ্বাসও দিয়েছেন অনন্যা। ওই কথোপকথনে অভিনেত্রী লিখেছিলেন, ‘আমি ব্যবস্থা করব।’ যদিও এনসিবি জানিয়েছে, অনন্যার বিরুদ্ধে গাঁজা সংগ্রহ বা সরবরাহের কোনো প্রমাণ এখনো হাতে পায়নি তারা। অনন্যাও পাল্টা দাবি করেছেন, ‘মজা করতেই ওই সব কথা বলেছিলেন তিনি।’

শুক্রবার (২২ অক্টোবর) জানা যায়, আরিয়ানকে গাঁজা দেওয়ার কথা অস্বীকার করেছেন অনন্যা। একই সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, কখনোই কোনো প্রকার মাদকসেবন করেননি তিনি।

এর আগে বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) অনন্যার বান্দ্রার বাড়িতে ৫ ঘণ্টা তল্লাশি চালায় এনসিবি। ৬ সদস্যের একটি টিম তার বাড়ি থেকে কিছু জিনিসপত্র বাজেয়াপ্ত করে নিয়ে যান।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *