ইভ্যালির বিষয়ে তদন্ত করতে দুদকের ‘না’

ইভ্যালির বিষয়ে তদন্ত করতে দুদকের ‘না’

বিতর্কিত ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির বিরুদ্ধে ‘৩০০ কোটি টাকা আত্মসাত ও পাচারের’ অভিযোগ অনুসন্ধানে নামার সাড়ে তিন মাসের মাথায় তদন্ত থেকে সরে দাঁড়িয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। সংস্থাটি ইভ্যালির বিষয়ে আর কোনো তদন্ত করবে না।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দুদক প্রধান কার্যালয়ের সামনে কমিশনের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মঈনউদ্দীন আবদুল্লাহ সাংবাদিকদের বিষয়টি জানিয়েছেন।

এক প্রশ্নের জবাবে দুদক চেয়ারম্যান বলেন, ই-কমার্স বা ইভ্যালির বিষয়টি দুদকের শিডিউলভুক্ত নয়। মানি লন্ডারিংয়ের (অর্থ পাচার) কথা যখন হয়েছিল তখন আমরা অনুসন্ধানে নেমেছিলাম। এখন মানি লন্ডারিংসহ ইভ্যালির বিষয়টি অন্য সংস্থা দেখবে।

তিনি আরও বলেন, ইভ্যালির বিষয়টি দেখার দায়িত্ব কমিশনের ওপর পড়ে না। এটি গ্রাহকদের সঙ্গে প্রতারণা ও স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়। সেজন্য বিষয়টি পুলিশ দেখবে, সিআইডি দেখবে।

তবে অর্থ পাচারে অভিযোগ কীভাবে দুদকের শিডিউলের মধ্যে পড়ে না- সাংবাদিকদের কাছে সে বিষয়ে সন্তোষজনক কোনো ব্যাখ্যা দেননি কমিশনপ্রধান।

উল্লেখ্য, প্রতারণার অভিযোগে এক গ্রাহকের করা মামলায় গত ১৬ সেপ্টেম্বর রাজধানীর মোহাম্মদপুরের বাসায় অভিযান চালিয়ে ইভ্যালির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মো. রাসেল ও তার স্ত্রী প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিনকে গ্রেফতার করে র‌্যাব।

ওই দিনই তাদেরকে গুলশান থানায় সোপর্দ করা হয়। এরপর তাদেরকে কয়েক দফায় রিমান্ডে নেওয়া হয়।এখন দুজনই কারাগারে রয়েছেন

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *