স্কটল্যান্ড কোচের বিতর্কিত মন্তব্যের জবাবে যা বললেন মাহমুদউল্লাহ

স্কটল্যান্ড কোচের বিতর্কিত মন্তব্যের জবাবে যা বললেন মাহমুদউল্লাহ

পাঁচ বছরের বিরতির পর আবারও এলো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। ওমানে আজ শুরু হয়ে ১৪ নভেম্বর সংযুক্ত আরব আমিরাতে শেষ হবে বৈশ্বিক এ টুর্নামেন্ট।

টুর্নামেন্টে অংশ নিচ্ছে ১৬ দল। বাছাই পর্বে বি-গ্রুপে পড়েছে বাংলাদেশ। টাইগারদের প্রতিদ্বন্দ্বী তিন দল – স্কটল্যান্ড, পাপুয়া নিউগিনি এবং ওমান।

যে কোনো দিক থেকেই নিজেদের গ্রুপে ফেভারিট বাংলাদেশ। কিন্তু বিষয়টি মানতে নারাজ স্কটল্যান্ডের কোচ শেন বার্জার।

রোববার উদ্বোধনী দিনেই রাত ৮টায় ওমানের মাসকাট স্টেডিয়ামে স্কটল্যান্ডের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।

ম্যাচ মাঠে গড়ানোর একদিন আগেই রীতিমতো চোখ রাঙানি দিয়েছেন তিনি। জানালেন বাকি দুদল পাপুয়া নিউগিনি ও ওমানের চেয়ে বাংলাদেশকে বড় করে দেখেন না তিনি। আন্ডারডগ দল দুটির সঙ্গে এক পাল্লাতেই বাংলাদেশকে মাপছেন স্টটিশ কোচ।

টি-টোয়েন্টিতে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে একটিই ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। ২০১২ সালে সেই ম্যাচে জিতেছিলেন স্কটিশরাই। হয়তো ৯ বছর আগের সেই সাফল্যের স্মৃতিচারণ করেই বাংলাদেশকে খাটো করে মন্তব্য করলেন।

স্কটিশ কোচের এমন মন্তব্য কীভাবে নিয়েছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ? সে প্রশ্ন ছোড়া হয়েছিল ম্যাচপূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে।

মাহমুদউল্লাহ যা বললেন তাতে বোঝা গেল— মাঠের বাইরের লড়াইয়ে জড়াতে চান না তিনি। মাঠে ব্যাট-বলেই সে কথার জবাব দেবে টাইগাররা।

বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক বলেন, ‘আমি খুব একটা বদার্ড (বিরক্ত) নই, উনি কী বলেছেন… আমরা আমাদের খেলার সামর্থ্য সম্পর্কে জানি। আশা করি, দল হিসেবে আমরা নিজেদের সেরাটা মাঠে দেব এবং সেই চেষ্টাই থাকবে। ফল তার আপন পথ বেছে নেবে। আমাদের সামর্থ্যের মধ্যে যেটুকু থাকবে, হার্ড ক্রিকেট খেলব, এটাই জানি। প্রতিটি দলকেই সমানভাবে সম্মান করি, বিনয়ীও থাকতে চাই। পাশাপাশি হার্ড ও গুড ক্রিকেট খেলতে চাই।’

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *