হাজীগঞ্জে সংঘর্ষ ও নিহতের ঘটনা তদন্তে কমিটি

হাজীগঞ্জে সংঘর্ষ ও নিহতের ঘটনা তদন্তে কমিটি

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে জনতা-পুলিশের সংঘর্ষে নিহতের ঘটনায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসককে প্রধান করে ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে ৭ দিনের মধ্যে রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে বলে জানান চাঁদপুর জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিস।

এদিকে সংঘর্ষের ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন জাতীয় সংসদের হুইপ ও আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাইদ আল মাহমুদ।

তিনি বৃহস্পতিবার বিকালে হাজীগঞ্জ বাজারের লক্ষী নারায়ণ জিউর আখড়ায় পূজামণ্ডপ পরিদর্শনকালে সাংবাদিকদের বলেন, এ অপশক্তিকে চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হবে। সুস্থ ধর্মপ্রাণ ব্যক্তিরা এমন হামলা করতে পারেন না। অপশক্তিরাই হামলা করেছে। কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।

চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি আনোয়ার হোসেন বলেন, এ ঘটনায় একাধিক মামলা হবে। এখন পর্যন্ত হাজীগঞ্জে ৭ জন, কুমিল্লায় ৪৩ ও চট্টগ্রাম রেঞ্জে ৭৩ জনকে আটক করা হয়েছে।

এ সময় আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ডক্টর সেলিম মাহমুদ, অতিরিক্ত ডিআইজি ইকবাল হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি নাসির উদ্দিন আহমেদ, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু নঈম পাটোয়ারী দুলাল, পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদ, সদর সার্কেল সুদীপ্ত রায়, হাজীগঞ্জ সার্কেল সোহেল মাহমুদ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোমেনা আক্তার, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান গাজী মো. মাইনুদ্দিন, পৌর মেয়র আ স ম মাহবুব উল আলম লিপন, চাঁদপুর পৌর মেয়র জিল্লুর রহমান জুয়েল, হাজীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ হেলাল উদ্দিন মিয়াজী, ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম ফারুক মুরাদ উপস্থিত ছিলেন।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *