”আবহাওয়ার পূর্বাভাস ”

ধেঁয়ে আসছে দেশের দিকে শক্তিশালী ক্রান্তীয় বৃষ্টিবলয় আঁখি।

এটি একটি শক্তিশালী মৌসুম পরবর্তী ক্রান্তীয় বৃষ্টি প্রবাহ।

সম্ভাব্য সময়সূচি ১৫ ই অক্টোবর রাত থেকে ২৩ শে অক্টোবর দুপুর পর্যন্ত, পর্যায়ক্রমে ভিন্ন ভিন্ন সময়ে দেশের সকল এলাকায়।

সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত স্থান : চট্টগ্রাম, বরিশাল ও খুলনা বিভাগ।

মাঝারি সক্রিয় স্থান : ঢাকা, সিলেট ও ময়মনসিংহ বিভাগ ও

কিছুটা কম সক্রিয় স্থান : রংপুর ও রাজশাহী বিভাগ।

সৃষ্টি : সাগরে একটি সিস্টেম তৈরি হচ্ছে যা সাধারন নিম্নচাপ আকারে দেশের অভ্যন্তরে প্রবেশ করার জন্য এই বৃষ্টিবলয় আখি তৈরি হতেযাচ্ছে।

বজ্রপাত : আঁখি চলাকালীন সময়ে তেমন কোন তীব্র বজ্রপাত এর সম্ভাবনা কম।

মেঘের অভিমুখ : অধিকাংশ বৃষ্টিবাহী মেঘের অভিমুখ থাকবে দক্ষিণ পুর্ব হতে উত্তর পশ্চিম দিকে। ও শেষের দিকে দক্ষিণ পশ্চিম দিক থেকে উত্তর পূর্ব দিকে।

ঝড় : আঁখি চলাকালীন সময়ে ঝড় হবার কথা নয়। তবে উপকূলে কিছুটা দমকা হাওয়া বয়ে যেতে পারে এবং সাগর কিছুটা উত্তাল হওয়ার সম্ভাবনা।

তাপমাত্রা : আঁখি চলাকালীন সময়ে দেশের প্রায় সকল স্থানের গড় তাপমাত্রা বেশ হ্রাস পেতেপারে, সুতরাং মুক্তি মিলবে এই ভ্যাপসা গরম থেকে।

বৃষ্টির ধরন : আঁখি আক্রান্ত হবার প্রথম ২ বা ৩ দিন থেমে থেমে বিক্ষিপ্তভাবে বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে, আখি চলার মাঝামাঝি একটানা বৃষ্টির সম্ভাবনা বেশি।

বন্যা : আঁখি চলাকালীন সময়ে অতিরিক্ত বৃষ্টির কারনে দেশের কিছু নিচু এলাকায় সাময়িক জলাবদ্ধতা বা বন্যার সৃষ্টি হতেপারে।

আসুন একনজরে দেখেনেই বৃষ্টি বলয় আঁখি চলাকালীন সময়ে দেশের কোন বিভাগে গড়ে কত মিলিমিটার বৃষ্টি হতেপারে।

বিভাগের নাম : বৃষ্টির পরিমান মি মি. আকারে।
ঢাকা ১৭০+
চট্টগ্রাম। ২৫০+
রাজশাহী ১০০+
খুলনা ২০০+
বরিশাল। ২৫০+
সিলেট। ২০০+
ময়মনসিংহ। ২২০+ ও
রংপুর। ১২০+

কলকাতা, ইন্ডিয়া গড়ে ২১০+ বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে।
যেহেতু এটি গড় ধারনা, সুতরাং কোন ক্ষুদ্র স্থানে এর চেয়েও অনেক বেশি বা কম বৃষ্টিপাত হতেপারে।

আসুন একনজরে দেখেনেই আখির সক্রিয়তার সময়সূচি আপনার বিভাগে।

বৃষ্টিবলয় আখি চক্র।

চট্টগ্রাম বিভাগ ১৬ টু ২২/২৩ শে অক্টোবর।

বরিশাল ও খুলনা বিভাগ ১৬ টু ২১ শে অক্টোবর।

রংপুর, ঢাকা, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগ ১৮ টু ২০/২১ শে অক্টোবর।

রাজশাহী বিভাগ, ১৮ টু ২০ শে অক্টোবর।

নোট : ১ দিন আগে পরে হতেপারে।

বৃষ্টিপাত এর পরিমাণ, ৮০ থেকে ৪০০ মিলিমিটার পর্যন্ত, স্থানভেদে।

নোট : প্রাকৃতিক কারনে আখির সময়সূচি কিছুটা পরিবর্তন ও এর শক্তি কিছুটা হ্রাস বৃদ্ধি বা বিলুপ্তি হতেপারে।

আরও ভালো নির্ভরযোগ্য পূর্বাভাস পেতে আপনারা দেশের সরকারি আবহাওয়া অধিদপ্তর পূর্বাভাস গুলো দেখুন।

8:40pm BST

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *