এমবাপ্পে-বেনজেমার নৈপুণ্যে ফাইনালে উঠল ফ্রান্স (ভিডিও)

এমবাপ্পে-বেনজেমার নৈপুণ্যে ফাইনালে উঠল ফ্রান্স (ভিডিও)

 

উয়েফা নেশন্স লিগে ঘুরে দাঁড়ানোর দারুণ এক গল্প লিখল ফ্রান্স। প্রথমার্ধে দুই গোলে পিছিয়ে পড়া দলটি দ্বিতীয়ার্ধে চমকে দিল সমর্থকদের।

ফিফা র‌্যাংকিংয়ে এক নম্বর দল বেলজিয়ামের জালে তিনবার বল জড়িয়ে ম্যাচ নিজেদের করে নিল দিদিয়ে দেশমের শিষ্যরা।

এমন রোমাঞ্চকর ম্যাচ উপহার দিয়ে নেশন্স লিগে পা রাখল ফাইনালে ফরাসিরা।

তুরিনের আলিয়াঞ্জ স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার রাতে লিগের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে৩-২ গোলে জিতেছে ফ্রান্স।

ইতালির রেকর্ড অপরাজেয় যাত্রা থামানো স্পেনকে ফাইনালে পাবে করিম বেনজেমারা।

ম্যাচের প্রথমভাগে আক্রমণে ফ্রান্সকে চেপে রাভে বেলজিয়াম। মাত্র তিন মিনিটের ব্যবধানে দুই গোল করে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নেয় বেলজিয়াম।

৩৭তম মিনিটে ডে ব্রুইনের পাস ধরে বাঁ দিক দিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে নিখুঁত শটে ফ্রান্সের জালে বল জড়িয়ে দেন ইয়ানিক কারাসকো।

লিড এনে দেওয়ার উল্লাসের রেশ তখনো কাটেনি, ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ইন্টার মিলানের ফরোয়ার্ড রোমেলু লুকাকু।

প্রথম গোলের ৪ মিনিট পরই ডে ব্রুইনের পাস ধরে প্রতিপক্ষে ডিফেন্স চিড়ে ফরাসি গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন লুকাকু।

প্রথমার্ধে লুকাকু- কারাসকোদের সামনে বিবর্ণ ছিলেন আঁতোয়া গ্রিজমান, করিম বেনজেমা ও এমবাপ্পের মতো তারকারা।

২-০ গোলে পিছিয়ে থেকে বিরতিতে যায় ফ্রান্স।

দ্বিতীয়ার্ধে নেমে ৫৮তম মিনিটে সুযোগ হাতছাড়া করেন ফরাসি ফরোয়ার্ড গ্রিজম্যান। এমবাপ্পের দেওয়া পাসে গোলমুখ থেকে মাত্র। তিন গজ দূরে বল পেয়েও পোস্টের বাইরে মারেন গ্রিজমান।

৬২তম মিনিটে দুর্দান্ত খেলেন এমবাপ্পে-বেনজেমা জুটি। একবার পিএসজি তারকাকে হতাশ করেননি রিয়াল মাদ্রিদ তারকা।

বাঁ দিক দিয়ে একজনকে কাটিয়ে ডি-বক্সে বেনজেমাকে খুঁজে নেন এমবাপ্পে। শরীর ঘুরিয়ে নিচু শটে ফ্রান্সের হয়ে প্রথম গোলটি করেন বেনজেমা।

৭ মিনিট বাদেই দলকে সমতায় ফেরান এমবাপ্পে। ৬৯তম মিনিটে ডি-বক্সে গ্রিজমানকে বেলজিয়ান মিডফিল্ডার ইউরি টিলেমানস ফাউল করলে ভিএআরের সাহায্যে পেনাল্টি দেন রেফারি।

সফল স্পট কিকে স্কোরলাইন ২-২ করেন এমবাপ্পে।

৮৭তম মিনিটে প্রতি-আক্রমণে লুকাকু আবারও জালে বল পাঠায়। কিন্তু অফসাইডের কারণে সেই গোল বাতিল হয়ে যায়। এর দুই মিনিট পরই পল পগবার ফ্রি-কিক বেলজিয়ামের পোস্টে লেগে ফিরে আসে।

২-২ গোলের ব্যবধানে নির্ধারিত ৯০ মিনিট শেষ হওয়ার পথে ফ্রান্সের ত্রাতা হয়ে আসেন থিও এরনঁদেজ। জয়সূচক গোলটি করে ফরাসিদের মুখে হাসি ফোটান এসি মিলানের এই ডিফেন্ডার।

বেলজিয়ামের রক্ষণের ভুলে ডি-বক্সে পেয়ে যান এরনঁদেজ। দারুণ শটে জালে বল জড়িয়ে দিয়ে স্কোরলাইন ৩-২ করেন।

আগামী রোববার নেশন্স লিগের দ্বিতীয় আসরের শিরোপা লড়াইয়ে নামবে ফ্রান্স ও স্পেন। একই দিনে তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে মুখোমুখি হবে ইতালি ও বেলজিয়াম।

ম্যাচ হাইলাইটস দেখুন –

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *