আজারবাইজানে ইরানি দূতাবাসে হামলা

আজারবাইজানে ইরানি দূতাবাসে হামলা

আজারবাইজানে অবস্থিত ইরানের দূতাবাসে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে দুষ্কৃতকারীরা হামলা চালিয়েছে। এ ঘটনায় কঠোর প্রতিবাদ জানিয়েছে তেহরান।

আজারবাইজানের নিযুক্ত ইরানের রাষ্ট্রদূত আব্বাস মুসাভি শুক্রবার বাকুতে অবস্থিত ইরানি দূতাবাসে হামলার কঠোর প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, এ ব্যাপারে ব্যবস্থা না নেওয়া পর্যন্ত তেহরান হাল ছাড়বে না। খবর পার্সটিভির।

তিনি জানান, এ ঘটনায় জড়িত থাকার সন্দেহে আজারবাইজানের কূটনৈতিক পুলিশ এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় চার ব্যক্তিকে চিহ্নিত ও আটক করেছে এবং তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে।

একইসঙ্গে তিনি বলেছেন, ইহুদিবাদী ইসরাইল এ অঞ্চল নিয়ে যে নাশকতার পরিকল্পনা করছে- তা কখনো বাস্তবায়ন হবে না। আজারবাইজানে নিযুক্ত ইসরাইলের রাষ্ট্রদূত যে দাবি করেছেন তাও আব্বাস মুসাভি প্রত্যাখ্যান করেন।

বাকুতে নিযুক্ত ইসরাইলের রাষ্ট্রদূত জর্জ ডিক দাবি করেছেন, ধর্মীয় ও জাতিগত সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতন চালাচ্ছে ইরান এবং অন্য দেশের ইহুদি সম্প্রদায়কে লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করেছে।

জবাবে আব্বাস মুসাভি বলেন, ইহুদি, খ্রিস্টান এবং অন্য সব ঐশী কিতাবধারী সম্প্রদায়ের প্রতি আমাদের বিশেষ সম্মান রয়েছেন। তবে আমরা নিশ্চিত, আজারবাইজান ও ফিলিস্তিন সব সময় মুসলিম দেশ হিসেবে বিশ্বে টিকে থাকবে। ইহুদিবাদী ইসরাইলের স্বপ্ন এই অঞ্চলে কখনো বাস্তবায়িত হবে না।

এদিকে, ইরানের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় সদর দপ্তরের স্থল বাহিনীর কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আলী হাজিলু শুক্রবার বলেছেন, প্রতিবেশী দেশগুলোর অভিন্ন সীমান্তে ইরান কখনো ইহুদিবাদী ও উগ্রবাদী সন্ত্রাসীদের অস্তিত্ব মেনে নেবে না।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *