জুম মিটিংয়ে স্ত্রীকে ডিভোর্স দিলেন আফগানিস্তানের শেষ ইহুদি ব্যক্তি

জুম মিটিংয়ে স্ত্রীকে ডিভোর্স দিলেন আফগানিস্তানের শেষ ইহুদি ব্যক্তি

আফগানিস্তানের শেষ ইহুদি ব্যক্তি জাবুলন সিমান্তভ স্ত্রীকে জুম মিটিংয়ে ডিভোর্স দিয়েছেন। গত ২০ বছর ধরে ডিভোর্স দেওয়ার ব্যাপারে সম্মতি না দিলেও আফগানিস্তান থেকে যুক্তরাষ্ট্র যাওয়ার আগে জুম মিটিংয়ে স্ত্রীর সঙ্গে আনুষ্ঠানিক বিচ্ছেদ ঘটান তিনি।

টুইটারে ইসরাইলি সাংবাদিক ভিকা ক্লেইন জানান, জুম মিটিংয়ে ইহুদিদের ধর্মগুরু রাব্বি উলমান ওই বিচ্ছেদের শুনানিতে অংশ নেন। জুম মিটিংয়ে ইস্তানবুলের রাব্বি মান্দি হৃতিক এবং ব্যবসায়ী মতি কাহানাও উপস্থিত ছিলেন।
এটাই ইহুদিদের ইতিহাসে প্রথম জুম মিটিংয়ের মাধ্যমে কোনো বিচ্ছেদ স্বাক্ষরিত হলো বলে টুইটারে জানিয়েছেন মতি কাহানা।

চলতি মাসের শুরুতে জাবুলন সিমান্তভ একটি প্রক্সি ডিভোর্স ডকুমেন্টে স্বাক্ষর করেছিলেন। কিন্তু ইহুদি আদালতে ওই ডকুমেন্ট স্বীকৃতি পাবে কী না তা নিয়ে সন্দেহ ছিল। সে কারণেই জুম মিটিংয়ের মাধ্যমে ডিভোর্সের আয়োজন করা হয়।

সিমান্তভের ইসরাইলি স্ত্রী প্রায় ২০ বছর ধরে বিচ্ছেদ চাচ্ছিলেন বলে গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে জানা গেছে। মস্কোর প্রধান রাব্বি পিঞ্চাস গোল্ডস্মিট টুইটারে জানান, বিচ্ছেদ কার্যকরের জন্য তিনি আফগানিস্তানে যাওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিলেন কিন্তু সিমান্তভ তা প্রত্যাখ্যান করেন।

সিমান্তভের ইসরাইলি স্ত্রী ও তাদের দুই মেয়ে ১৯৯৮ সাল থেকে ইসরাইলে বাস করছেন। কিন্তু ২০২১ সালের আগস্টে তালেবান কাবুল দখলের আগ পর্যন্ত সিমান্তভ আফগানিস্তানেই ছিলেন। স্ত্রীকে ডিভোর্স দেওয়ার পর আফগানিস্তান ছেড়ে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমিয়েছেন ৬২ বছর বয়সী এই ব্যক্তি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *