ফুটবল খেলা নিয়ে ফেসবুকে মন্তব্য, সংঘর্ষে আহত ১০

ফুটবল খেলা নিয়ে ফেসবুকে মন্তব্য, সংঘর্ষে আহত ১০

বিয়ানীবাজারে ফুটবল খেলা নিয়ে ফেসবুকে মন্তব্যের জেরে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে ১০ জন আহত হয়েছেন। এর মধ্যে ৪ জনের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

শুক্রবার বিকালে জলঢুপ উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- সাবেক ছাত্রনেতা জলঢুপ কালিবহর এলাকার কলিম উদ্দিন, কাদির আহমদ, জলঢুপ স্পোর্টস একাডেমির প্রতিষ্ঠাতা কমলাবাড়ি এলাকার জামাল আহমদ, সাবেক ফুটবলার ডালিম উদ্দিন, বাবর আহমদসহ আরও বেশ কয়েকজন। এ সময় সংঘর্ষ থামাতে আসা বেশ কয়েকজন আহত হন। তারা বিয়ানীবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিলেও অবস্থা আশংকাজনক হওয়া কলিম আহমদ, ডালিম আহমদসহ ৪জনকে সিলেটে প্রেরণ করা হয়েছে।

সাবেক ফুটবলার জামাল আহমদ বলেন, কাকরদিয়া এলাকায় ফুটবল খেলতে যাওয়ার জন্য বের হয়েছিলাম। জলঢুপ এলাকায় আসার পর কলিম-কাদিরসহ বেশ কয়েকজন হামলা চালায়। এ সময় আমাকে রক্ষা করতে এসে আরও কয়েকজন আহত হয়েছেন। তাদেরকে নিয়ে তিনি চিকিৎসার সিলেট যাচ্ছেন।

ফেসবুকে একটি মন্তব্যের প্রতিবাদ করতে গিয়ে এই সংঘর্ষ বলে অভিযোগ কলিম আহমদের। তিনি জানান, স্থানীয়দের হামলায় তিনিসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন।

কলিম বলেন, ভাদেশ্বর এলাকার মীরগঞ্জে আমাদের নতুন কুড়ি ক্লাব ফুটবল খেলে পরাজিত হয়েছে। এ নিয়ে ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাসকে কেন্দ্র করে জামালের অনুসারীরা বাজে মন্তব্য করে। এর প্রতিবাদ জানালে জামাল-ডালিমরা আমাদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়।

এদিকে ঘটনার খবর পেয়ে বিয়ানীবাজার থানা পুলিশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরে জলঢুপ এলাকায় গিয়ে উভয় পক্ষের সঙ্গে কথা বলে পরিস্থিতি শান্ত করার চেষ্টা করেছে বলে জানা গেছে। ঘটনার পর থেকে জলঢুপ এবং আষ্টসাঙ্গন এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে সেখানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়ে বলে জানান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি হিল্লোল রায়।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *