ভোট কেন্দ্রের গোপন কক্ষ থেকে প্রার্থীর স্ত্রীসহ ১২ জন আটক

ভোট কেন্দ্রের গোপন কক্ষ থেকে প্রার্থীর স্ত্রীসহ ১২ জন আটক

ফেনীর সোনাগাজী পৌর নির্বাচনে ভোট কেন্দ্রের গোপন কক্ষে অবস্থান করার অভিযোগে কাউন্সিলর প্রার্থী শেখ মামুনের স্ত্রী ফারজানা আক্তার, আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী খোকনের ভাগ্নিজামাতা কামরুল হাসান ও মঙ্গলকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের ৭নং ওয়ার্ড মেম্বার হোমা মিয়াসহ ১২ জনকে আটক করা হয়েছে।

সোমবার সকাল থেকে ভোটগ্রহণ শুরুর পর বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ উঠে। ভোট কেন্দ্রের বাহিরে বহিরাগতদের ব্যাপক উপস্থিতির বিষয়ে অভিযোগ করেছেন স্থানীয় ভোটাররা।বিরোধী দলগুলোর প্রার্থী না থাকায় সোনাগাজী পৌর নির্বাচনে কোনো নির্বাচনী আমেজ দেখা যায়নি।

পুলিশ জানায়, কেন্দ্রে গোপন কক্ষে অবস্থান করার অভিযোগে সাবের পাইলট হাইস্কুল কেন্দ্র থেকে কাউন্সিলর প্রার্থী শেখ মামুনের স্ত্রী ফারজানা আক্তার, এনায়েত উল্যা মহিলা কলেজ কেন্দ্র থেকে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী খোকনের ভাগ্নিজামাতা কামরুল হাসান ও মঙ্গলকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের ৭নং ওয়ার্ড মেম্বার হোমা মিয়াসহ ১২ জনকে আটক করা হয়েছে।

নির্বাচনে মেয়র পদে চারজন, সাধারণ ৯টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ২৩ জন এবং সংরক্ষিত দুটি ওয়ার্ডে চারজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। সংরক্ষিত ২ নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে তাছলিমা আক্তার বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

প্রথমবারের মতো এই পৌরসভার সব কেন্দ্রে ইভিএমে ভোটগ্রহণ হয়। ৯টি কেন্দ্রের ৪৯ বুথে ৭৫টি ইভিএম মেশিনে ভোট দেন ১৫ হাজার ৯৮৫ জন ভোটার।

নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী অ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম খোকন ৫ হাজার ৩৬১ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোবাইল প্রতীকে স্বতন্ত্র প্রার্থী আবু নাছের পেয়েছেন ৭০৭ ভোট। সোনাগাজী পৌরসভায় মোট ভোটার ১৫ হাজার ৯৮৫ জন। এর মধ্যে নারী ভোটার ৭ হাজার ৮৫৮ এবং পুরুষ ভোটার ৮ হাজার ১২৭ জন।

ফেনী জেলা পুলিশ সুপার খোন্দকার নূরুন্নবী বলেছেন, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশ তাদের আটক করেছে। ভোট কেন্দ্রের গোপন রুমে বেআইনিভাবে অবস্থান করার জন্য তাদের আটক করা হয়েছিল।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *