যুক্তরাষ্ট্রের সমালোচনা করে যা বললেন আফগান পররাষ্ট্রমন্ত্রী

যুক্তরাষ্ট্রের সমালোচনা করে যা বললেন আফগান পররাষ্ট্রমন্ত্রী

আফগানিস্তান থেকে যুক্তরাষ্ট্র দীর্ঘ ২০ বছর শেষে সেনা প্রত্যাহার করে নেওয়ার মধ্যেই দেশটির ক্ষমতা দখলে নিয়েছে তালেবান। এর মধ্যে তারা অন্তর্বর্তী সরকারও গঠন করেছে। সে সরকারের ভারপ্রাপ্ত পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমির খান মোত্তাকি তীব্র সমালোচনা করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের।

কাতারভিত্তিক গণমাধ্যম আলজাজিরা এ তথ্য জানায়।

সরকার গঠনের পর থেকে এই প্রথম সাংবাদিকদের মুখোমুখি হলেন আমির খান মোত্তাকি। মঙ্গলবার তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রসহ ‘যে কোনো দেশকে’ আফগানিস্তানের ওপর নিষেধাজ্ঞা বা বিধিনিষেধ আরোপের অনুমতি দেবে না তালেবান।

মোত্তাকি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রকে আমরা সহযোগিতা করেছি শেষ লোকটিকে আফগানিস্তান থেকে সরিয়ে নেওয়া পর্যন্ত। কিন্তু দুঃখজনক বিষয় হচ্ছে— যুক্তরাষ্ট্র ধন্যবাদ জানানোর পরিবর্তে আমাদের সম্পদ জব্দ করেছে।

১৫ আগস্ট তালেবান কাবুলের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার পর থেকে যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ, ইন্টারন্যাশনাল মনিটারি ফান্ড ও বিশ্বব্যাংকের তহবিলে আফগানিস্তানের প্রবেশ বন্ধ করে দিয়েছে।

এদিকে তীব্র সংকটের মধ্যে ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের বেশি অর্থ সহায়তা দেওয়ার প্রতিশ্রুতির জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি মোত্তাকি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। তালেবান বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সঙ্গে কাজ করতে আগ্রহী সে বিষয়টিও তিনি জানিয়ে দেন।

এখন পর্যন্ত তালেবানের নতুন সরকারকে কোনো দেশ আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকৃতি দেয়নি।

মোত্তাকি জানিয়ে দিয়েছেন, তালেবান সরকার বিশ্বের যে কোনো দেশের সঙ্গে কাজ করতে আগ্রহী, তবে কোনো দেশের ‘হুকুমের দাস’ হবে না।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *