শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা শুরু

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা শুরু

সভায় কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক, স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক, স্থানীয় সরকারমন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল অংশ নিয়েছেন।
মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন,কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আমিনুল ইসলাম খান, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আলমীর মুহম্মদ মনসুরুল আলম উপস্থিত আছেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এ বি এম খুরশীদ আলম, আইডিসিআরের প্রতিনিধিসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তারা অংশ নিয়েছেন।

সরকারের শীর্ষ ব্যক্তিদের অংশগ্রহণে এ সভায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে এবং তা গণমাধ্যমকে জানিয়ে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।

গতবছরের ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্তের পর ১৮ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। সবশেষ ছুটি আগামী ১১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হয়। করোনা সংক্রমণের হার কমে আসায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে এর আগে ২৬ আগস্ট একটি যৌথ সভা হয়।

গত ৩ সেপ্টেম্বর শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি জানিয়েছিলেন, আগামী ১২ সেপ্টেম্বর থেকে উচ্চ মাধ্যমিক স্তর পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হবে। আর মেডিক্যাল কলেজগুলো ১৩ সেপ্টেম্বর এবং সরকারি ও বেসিরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো অক্টোবরের মাঝামাঝি সময়ে খুলে দেওয়ার কথা সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

দু’দিন আগে শিক্ষা উপমন্ত্রী জানিয়েছেন, সপ্তাহে একদিন করে শিক্ষার্থীদের ক্লাসে আনা হবে। তবে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় সব পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কীভাবে খুলে দেওয়া হবে তা জানাবে সরকার।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *