তালেবানের উদ্দেশে জাতিসংঘে বার্তা দিল ভারত


তালেবানের উদ্দেশে জাতিসংঘে বার্তা দিল ভারত

জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশনের বিশেষ বৈঠকে আফগানিস্তান পরিস্থিতি উত্থাপন করেছে ভারত। ভারতের পক্ষ থেকে পরোক্ষ ভাবে তালিবনকে বার্তা দেওয়া হয় বৈঠকে। ভারত আশা করছে যে, আফগানিস্তান প্রতিবেশী দেশের জন্য মাথা ব্যথার কারণ হয়ে উঠবে না।

আশা করা হচ্ছে, আফগান মাটি ব্যবহার করে প্রতিবেশী দেশে হামলা চালাবে না লস্কর-ই-তৈবা, জইশ-ই-মহম্মদের মতো জঙ্গি সংগঠনগুলি। খবর ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস ও হিন্দুস্তান টাইমসের।

খবরে বলা হয়, মঙ্গলবার ভারত জানিয়েছে আফগানিস্তানের বর্তমান পরিস্থিতি ‘খুবই উদ্বেগজনক’।

বৈঠকে জাতিসংঘে নিযুক্ত ভারতের রাষ্ট্রদূত ইন্দ্রা মানি পান্ডে বলেন, আফগানিস্তান একটি কবরে পরিণত হয়েছে। পুরো দেশটিতে মানবিক সংকট চরম আকার ধারণ করেছে। দেশটির সবাই এখন খুবই উদ্বেগের মধ্যে দিন কাটাচ্ছে। এখন দেশটিতে সহিংসতা ও মৌলিক অধিকার নিয়ে শংকিত আফগান জনগণ।

গত ১৫ আগস্ট কাবুল দখল করেছে তালেবান যোদ্ধারা। এরপর থেকেই দেশটিকে নিয়ে আন্তর্জাতিক বিশ্বে নানা আলোচনা চলছে।

আফগানিস্তানে তালেবান গোষ্ঠীর পুনরায় ক্ষমতায় আসার বিষয়টি বিশেষ চিন্তায় ফেলেছে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে। ইতিমধ্যে জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মার্কেল ও রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে ফোন করে আফগানিস্তান ও তালেবান ইস্যুতে কথা বলেন।

এদিকে আফগান পরিস্থিতি নিয়ে বৃহস্পতিবার (২৬ আগস্ট) ভারতে সর্বদলীয় বৈঠক ডাকা হয়েছে।

ভারতের প্রধানমন্ত্রীর দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, এদিন আফগানিস্তান ছাড়াও মোদি ও অ্যাঞ্জেলা মার্কেলের বার্তালাপে উঠে আসে দুই দেশের করোনা পরিস্থিতির কথাও। আলোচনায় হয় করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে দুই দেশের মধ্যে সহযোগিতার বিষয়টিও।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *