তালেবান যোদ্ধাদের ভয়ে পাহাড়ে পালাচ্ছেন পঞ্জশিরবাসী

তালেবান যোদ্ধাদের ভয়ে পাহাড়ে পালাচ্ছেন পঞ্জশিরবাসী

আফগানিস্তানের পঞ্জশির প্রদেশ দখলের জন্য সোমবার তালেবানের কয়েকশ যোদ্ধা সেখানে পৌঁছেছে। তারা পঞ্জশির ঘিরে ফেলেছে। তালেবানের আক্রমণের ভয়ে সেখানকার সাধারণ বাসিন্দারা পাহাড়ে আশ্রয় নিয়েছেন।

তবে তালেবানের কাছে আত্মসমর্পণ করবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন প্রয়াত তালেবানবিরোধী নেতা আহমদ শাহ মাসউদের ছেলে আহমদ মাসউদ।

ফলে মাসউদের সঙ্গে তালেবান আলোচনার প্রস্তাবও দিলেও তা ফলপ্রসূ হয়নি।

এখন তালেবানদের ঠেকাতে নিজস্ব বাহিনী তৈরি করে পঞ্জশির রক্ষার কাজে ব্যস্ত মাসউদ।

তালেবানবিরোধী নেতা আমরুল্লাহ সালেহ টুইট করে লিখেছেন— আন্দারব উপত্যকায় খাবার এবং জ্বালানি আসতে দিচ্ছে না তালেবান। এখানে লোকজন মানবেতর জীবনযাপন করছেন। হাজার হাজার নারী ও শিশু পাহাড়ে আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়েছেন।

‘গত দুদিন ধরে তালেবানরা শিশু ও বৃদ্ধদের অপহরণ করে তাদের ঢাল হিসেবে ব্যবহার করছেন। এভাবেই তারা বিভিন্ন বাড়িতে তল্লাশি চালাচ্ছেন।’

এদিকে স্থানীয় মিলিশিয়াদের হাতে চলে যাওয়া বাঘলান প্রদেশের তিনটি জেলা দখলমুক্ত করা হয়েছে বলে দাবি করেছে তালেবান। সংগঠনটির মুখপাত্র জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ এ তথ্য জানিয়েছেন।

শুক্রবার তালেবান বিরোধী যোদ্ধারা পাল-হেসার, বানু আর আনদ্রাবি জেলাগুলো দখলমুক্ত করে। দখলমুক্ত করার পর তারা তালেবানের পতাকা নামিয়ে আফগানিস্তানের ত্রিরঙা পতাকা উড়িয়ে দেয়।

তালেবান মুখপাত্র জাবিহুল্লা মুজাহিদ বলেন, ইসলামি আমিরাত সমস্যাটি শান্তিপূর্ণভাবে সমাধানের চেষ্টা করছে।


 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *