সলামী অনুশাসন মানতে মিডিয়া ছাড়লেন জনপ্রিয় মডেল-উপস্থাপিকা আমব্রিন

সলামী অনুশাসন মানতে মিডিয়া ছাড়লেন জনপ্রিয় মডেল-উপস্থাপিকা আমব্রিন

অনেকদিন ধরেই নাটক, বিজ্ঞাপন বা উপস্থাপনায় দেখা যাচ্ছিল না জনপ্রিয় মডেল, অভিনেত্রী ও উপস্থাপিকা আমব্রিনা সার্জিন আমব্রিনকে।

বিশেষ করে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের জিম্বাবুয়ে সফর ও ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশের দুর্দান্ত টি-টোয়েন্টি সিরিজেও কোথাও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না তাকে। টিভির পর্দায় হাজির হচ্ছেন না ম্যাচ বিশ্লেষণ নিয়ে।

জানা গেছে, শোবিজ অঙ্গনকেই আনুষ্ঠানিকভাবে বিদায় জানিয়েছেন এ মডেল- উপস্থাপিকা। পুরোপুরি ইসলাম ধর্মের অনুশাসন মানার চেষ্টা করছেন।

পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায়সহ পর্দা প্রথাও পালন করছেন। শোবিজ ছেড়ে ধর্মকর্মে মনোনিবেশ করেছেন

এমন সিদ্ধান্ত নেওয়ার কারণও ব‌্যাখ‌্যা করেছেন এই অভিনেত্রী। ২০১৮ সালে কন্যা সন্তানের মা হওয়ার পরই তার জীবনে এই পরিবর্তন আসে। তার মেয়ের নাম আমায়া। অসুস্থ মেয়ে সুস্থ হওয়ার পরেই প্রতিজ্ঞামত তিনি শোবিজ ছেড়ে দেন।

সম্প্রতি আমায়াকে নিয়ে আমব্রিন ফেসবুকে একটি ছবি শেয়ার করেন যার ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, ‘ওর মতো একটা ফেরেশতা দিয়ে আল্লাহ আমাকে ধন্য করেছেন। ও আমাকে একজন ভালো মানুষ বানিয়েছে। আমার সেরা সংস্করণ। দয়ালু, ধৈর্য্যশীল এবং কৃতজ্ঞ। আলহামদুলিল্লাহ।’

আমায়ার জন্যই শোবিজ দুনিয়া ছেড়েছেন উল্লেখ করে আমব্রিন লিখেন, ‘মাত্র একদিন বয়সে যখন আমায়া জীবন নিয়ে লড়ছিল, তখন আমি আল্লাহর কাছে ওয়াদা করেছিলাম, আল্লাহ যেন আমার মেয়েকে সুস্থ করে দেন।

বিনিময়ে আমি শোবিজ ছেড়ে দেব। নিয়মিত হিজাব এবং পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়ব। হারাম কিছু করব না। আল্লাহ আমায়াকে সুস্থ করে আমার কাছে ফিরিয়ে দিয়েছেন। আমিও আল্লাহর কাছে ওয়াদা পালনে মনোযোগী হয়েছি।’

২০০৭ সালে লাক্স চ্যানেল আই সুপারস্টার প্রতিযোগিতার মাধ্যমে শোবিজের রঙিন দুনিয়ায় পা রাখেন আমব্রিন। প্রথমে মডেলিং, অভিনয় দিয়ে বেশ পরিচিতি পান। পরে ক্রিকেটে উপস্থাপনা করে বিশ্বব্যাপী সাড়া ফেলে দেন।

বিশেষ করে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগে (বিপিএল) উপস্থাপনা করে বেশি পরিচিত পান আমব্রিন। ২০১৭ সালের ৪ নভেম্বর কানাডাপ্রবাসী তৌসিফ আহসান চৌধুরীকে বিয়ে করেন তিনি। এরপর থেকে কানাডাতেই থাকছেন। সেখানেই তিনি পরিবার নিয়ে স্থায়ী হয়েছেন।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *