বারবার ভুল হয়

সুমনকে প্রায় অফিসে বকুনি খেতে হয়। দোষটা অবশ্য সুমনের। এমনিতে অফিসের সবাই ওকে খুব ভালোবাসে।

কারণ সুমন খুব মিশুক। তবে সমস্যা একটাই সুমন প্রতিদিনের কাজে কিছু না কিছু ভুল করে।

শুরুতে ব্যাপারটা নিয়ে কেউ কিছু বলতো না। সবাই নতুন বলে ভুল হতেই পারে, কাজ করতে করতে একদিন সব শিখে যাবে।

কিন্তু দুই বছর হয়ে গেলেও কোনো কাজ নির্ভুলভাবে করতে পারে না সুমন। সহকর্মীদের সঙ্গে বসও অন্তুষ্ট সুমনের প্রতি। তাই সুমন আছে মহাঝামেলার মধ্যে।

সুমন চেষ্টা করে কিন্তু নিজেই বুঝতে পারে না কোথায় ওর ভুল থেকে যাচ্ছে। সব কাজ যে পারফেক্টলি হবে তা হয়তো সম্ভব নয়।

কখনো ব্যস্ততার কারণে বা অন্য কোনো কাজের চাপে ছোটখাটো ভুল হতেই পারে। কিন্তু তা যদি প্রতিদিনের অভ্যাসে পরিণত হয়, তবে সেটা একদমই ভালো দেখায় না।

তখন সবার কাছে তো বটেই, নিজের কাছেও উত্তর দেওয়া কঠিন হয়ে পড়ে। এই রকম পরিস্থিতি সামলে উঠতে আপনার কী করণীয় তার কিছু উপায় জানিয়ে দিলাম।

আপনার করণীয়:

# কোনো কাজ ব্যস্ততা নিয়ে করতে যাবেন না। সময়মতো কাজ শুরু করুন, তাহলে নিজের স্পিডেই কাজ করতে পারবেন। ডেডলাইনের কোনো চাপ থাকবে না। কাজ করতে বসার আগে অবশ্যই একটি প্ল্যান করে নিন। কীভাবে কাজটা করবেন বা কোন পয়েন্টে বেশি গুরুত্ব দেবেন ইত্যাদি।

# বারবার নিজের কাজ রিচেক করুন। কোথাও কোনো ভুল থেকে যাচ্ছে কিনা ভালো করে দেখে নিন।

# কাজে ভুল হয়েছে বুঝতে পারলে বসকে জানিয়ে দিন। লুকিয়ে রাখবেন না। অন্যকেউ যদি আপনার ভুল দেখিয়ে দেয়, তাহলে আপনাকে আরো অস্বস্তিকর পরিস্থিতিতে পড়তে হতে পারে।

# ভুল জানানোর সঙ্গে সঙ্গে কীভাবে সেটা ঠিক করা যায় তার উপায়ও বসকে জানাতে পারেন। আপনার সম্পূর্ণ প্ল্যান বসকে জানান।

# নিজের ভুল অন্য কারো ওপর চাপিয়ে দেবেন না। এতে কিন্তু আরো ক্ষতি হতে পারে। বসের পাশাপাশি আপনার সহকর্মীদের মনেও বিরূপ প্রভাব তৈরি হবে।

# ভুল শোধরানোর জন্য আপনাকে যদি বেশি সময় কাজ করতে হয় তাহলে আফসোস করবেন না। মনে রাখবেন দোষটা আপনার তাই দায়টাও আপনাকে নিতে হবে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *