পরীমনিকাণ্ডে যা বললেন জায়েদ খান

পরীমনিকাণ্ডে যা বললেন জায়েদ খান

ঢাকাই ছবির নায়িকা পরীমনিকে বনানীর বাসা থেকে বিপুল পরিমাণ বিদেশি মদ, ইয়াবা, এলএসডি, আইস ও বিভিন্ন প্রকার মাদকসহ বুধবার আটক করে র‌্যাব।

বৃহস্পতিবার তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়। পরীমনিকে আটকের পর এ নিয়ে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির পক্ষ থেকে জোরালো বক্তব্য পাওয়া যাচ্ছিল না।

যা নিয়ে সমালোচনার ঝড় বইছিল। যদিও এ বিষয়ে লাইভে এসে বক্তব্য দিয়েছেন খ্যাতনামা পরিচালক মালেক আফসারী। পরিচালক সমিতি থেকেও পরীমনিকাণ্ডে বক্তব্য এসেছে।

এবার পরীমনিকাণ্ডে মুখ খুললেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান। পরীমনি আটকের রাতেই নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক ওয়ালে স্ট্যাটাস দিয়েছেন জায়েদ খান। যদিও স্ট্যাটাসে পরীমনির নাম উল্লেখ করেননি তিনি।

জায়েদ খান লিখেছেন, ‘অপরাধী শিল্পকে ব্যবহার করে মাত্র। তবে প্রকৃত শিল্পীরা কখনো খারাপ হতে পারেনা। ২/১ জনের কারনে সকলকে খারাপ ভাবা কাম্য নয়।’

এর আগে গত ৩ আগস্ট একইরকম স্ট্যাটাস দেন জায়েদ খান। অভিনেত্রী শবনম খানের বক্তব্যকেই শেয়ার করেন তিনি।

পোস্টে জায়েদ খান লেখেন, ‘দুই-একজন শিল্পীর নেতিবাচক খবর দিয়ে সকল শিল্পীদের কাজকে মুল্যায়ন করাও ঠিক হবে না, এতে করে বদনামটা তখন ছড়িয়ে পড়ে, পারস্পারিক শ্রদ্ধা থাকে না। তাই সহমর্মিতা-ভালবাসায় শিল্পীরা আগলে থাকুক।’

জায়েদ খান এই দায়সাড়া পোস্ট দিলেও লাইভে এসে পরীমনিকে নিয়ে বিস্তর কথা কথা বলেছেন পরিচালক মালেক আফসারি।

পরীমনিকে একজন নাটকবাজ বলে আখ্যা দেন তিনি। বলেন, সাত-আট মাস আগে সে কিছু উল্টাপাল্টা ছবি ফেসবুকে দেয়, আমি আবার তাকে একটু হুশিয়ার করছিলাম। এটা ঠিক না, এটা মুসলিম দেশ। সে জবাব দিয়েছিল ফেসবুকের মাধ্যমে। বলেছিল, ‘আপনি ডিরেক্টর আছেন, ছবি ডিরেকশন দেন। আমাকে ডিরেকশন দিয়েন না।আমি আবার মাইন্ড করি নাই, থাক পোলাপাইন! তারপরও বোর্ড ক্লাবের ঘটনায় তার পক্ষ নিয়ে বলেছি, এটা বিচারের আওতায় আনা উচিত। এটাও জনগণ মেনে নিতে পারেনি। এখন আমি দেখতে চাই কি ঘটনা ঘটে। কারো পক্ষ নিয়ে কথা বলতে চাই না।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *