ঢাকাFriday , 6 May 2022
  1. অন্যান্য
  2. আন্তর্জাতিক
  3. আবহাওয়া
  4. ইসলাম
  5. খেলাধুলা
  6. জাতীয়
  7. দেশজুরে
  8. বিনোদন
  9. রাজনীতি
  10. শিক্ষা
  11. স্বাস্থ্য

চলন্ত ট্রেনে জন্ম হলো ফুটফুটে নবজাতকের

admin
May 6, 2022 4:47 pm
Link Copied!

ঈদের ছুটি শেষে ফেরার পথে রাজশাহী থেকে ঢাকাগামী আন্তঃনগর ‘সিল্কসিটি এক্সপ্রেস’ ট্রেনে একটি ফুটফুটে পুত্রসন্তানের জন্ম দিয়েছেন এক নারী।

শুক্রবার (৭ মে) দুপুর ১টার দিকে ট্রেনটি টাঙ্গাইলে পৌঁছালে প্রসূতির প্রসব বেদনা শুরু হয়। পরে ওই ট্রেনের যাত্রী এক নার্স ও অন্য নারীদের সহায়তায় প্রসূতির বাচ্চা প্রসব করানো হয়।

বর্তমানে মা ও শিশুকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নবজাতক ও মা দুজনেই সুস্থ রয়েছেন বলে হাসপাতালের চিকিৎসরা নিশ্চিত করেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শী ও ট্রেনের কর্মকর্তা সূত্রে জানা যায়, নবজাতক জন্ম দেওয়া অন্তঃসত্ত্বা ওই নারীর নাম পারুল আক্তার।

তিনি রাজশাহী গোদাগাড়ীর তার এক আত্মীয়ের বাড়ি থেকে ঢাকায় ফিরছিলেন। পথিমধ্যেই ট্রেনটি টাঙ্গাইলে পৌঁছালে প্রসব বেদনা শুরু হয় তার।

তিনি বিচলিত হয়ে পড়েন। তবে পাশের সিটেই বসা ছিলেন দাউদকান্দির অ্যাপোলো প্লাস হাসপাতালের নার্স আলিফা সুলতানা সীমা। তার প্রচেষ্টায় চলন্ত ট্রেনেই ফুটফুটে পুত্রসন্তান প্রসব করেন পারুল।

বিকাল পৌনে ৩টায় কমলাপুর স্টেশনে নামেন তিনি। তখন খবর পেয়ে স্টেশনে তাকে গ্রহণ করেন তার স্বজনরা।

এছাড়া কমলাপুর স্টেশন প্লাটফর্মে ছুটে আসেন রেলওয়ে হাসপাতালের চিকিৎসক রিপন দাস ও শওকত জামির। পরে মা ও নবজাতককে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করান তারা।

চিকিৎসক রিপন দাস বলেন, রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে আমরা খবর পেয়ে দ্রুত কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে আসি।

পরে মা ও নবজাতককে একটি অ্যাম্বুলেন্সযোগে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তির ব্যবস্থা করি। মা ও নবজাতক সুস্থ রয়েছেন।

পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপক অসীম কুমার তালুকদার বলেন, ‘আমিও শুক্রবার সিল্কসিটি ট্রেনের যাত্রী ছিলাম।

তবে ওই প্রসূতি মা বাচ্চা প্রসবের আগেই পথিমধ্যেই আমি নেমে গেছি। যার কারণে ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী আমি হতে পারিনি।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের দেশের অনেক মা সন্তান গর্ভধারণের সময়কাল ঠিকমতো হিসাব রাখেন না। ভাগ্যক্রমে

ট্রেনে একজন নার্স ছিলেন। তিনি প্রসূতির বাচ্চা প্রসবে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন বলে জানতে পেরেছি।’

এর আগে গত বছরের ১৬ সেপ্টেম্বর খুলনা থেকে ছেড়ে আসা আন্তঃনগর সাগরদারি এক্সপ্রেসে সাবিনা ইয়াসমিন নামের এক প্রসূতি মা

চলন্ত ট্রেনের মধ্যেই পুত্রসন্তান জন্ম দেন। ওইদিনও এক নার্সের সহযোগিতায় ওই প্রসূতি মা ট্রেনটি বাঘার আড়ানি এলাকায়

পৌঁছামাত্র সন্তানের জন্ম দেন। পরে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ ওই নার্সকে সবংর্ধনা ও পুরস্কৃত করে। এছাড়া ওই নবজাতকের আজীবন ট্রেন ভ্রমণ ফ্রি করে দেওয়া হয়।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।