বিমান হামলার পরও ‘অপ্রতিরোধ্য’ তালেবান, লস্করগাহে চলছে ভয়ানক লড়াই

বিমান হামলার পরও ‘অপ্রতিরোধ্য’ তালেবান, লস্করগাহে চলছে ভয়ানক লড়া
যুক্তরাষ্ট্র সেনা প্রত্যাহার করে নেওয়ার প্রক্রিয়ার মধ্যে আফগানিস্তানের বহু জেলার দখল নিয়েছে তালেবান। এবার হেলমান্দ প্রদেশের রাজধানী লস্করগাহ দখলে হামলা জোরদার করেছে সশস্ত্র গোষ্ঠীটি। যুক্তরাষ্ট্র ও আফগান বাহিনীর বিমান হামলা গোষ্ঠীটির অগ্রযাত্রা বাধাগ্রস্ত করতে পারছে না।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি এ তথ্য জানায়।

তীব্র লড়াইয়ের মধ্যে প্রথম প্রাদেশিক রাজধানী তালেবানের দখলে চলে যাওয়ার শঙ্কা দেখা দিয়েছে। এ প্রদেশে তালেবানকে রুখতে আফগান বাহিনীর হয়ে যুক্তরাষ্ট্র বিমান হামলা চালিয়েছে। এতে তালেবানের সাতজন নিহতও হয়েছে বলে জানানো হয়। কিন্তু বিমান হামলা রুখতে পারছে না তালেবানের অগ্রযাত্রা।

ইতোমধ্যে তালেবান প্রদেশের একটি টিভি স্টেশন দখলে নিয়েছে বলে জানা যায়। সংঘাত থেকে নিজেদের বাঁচাতে কয়েক হাজার বাসিন্দা প্রত্যন্ত এলাকার বিভিন্ন ভবনে আশ্রয় নিয়েছেন।

প্রদেশের একটি হাসপাতালের এক চিকিৎসক বলেন, লস্করগাহের সবখানেই তীব্র লড়াই চলছে।

সশস্ত্র গোষ্ঠীটি মোকাবিলায় মোতায়েন করা হয়েছে নিরাপত্তা বাহিনীর শত শত সদস্য।

যদি লস্করগাহের নিয়ন্ত্রণ তালেবান নিতে পারে, তবে এটি হবে ২০১৬ সালের পর থেকে প্রথম কোনো প্রাদেশিক রাজধানী দখলে নেওয়ার ঘটনা।

হেলমান্দ ছাড়াও কান্দাহার ও হেরাত প্রদেশের রাজধানীতে তালেবানের সঙ্গে তীব্র লড়াইয়ে লিপ্ত রয়েছেন নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা।

এদিকে তালেবানের অগ্রযাত্রার মধ্যে দেশটির প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি ‘ছয় মাসের মধ্যে’ দেশের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য নিরাপত্তা পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন।

যদিও এ পরিকল্পনা প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে তালেবানের পক্ষ থেকে।

দীর্ঘ ২০ বছর পর আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার করছে যুক্তরাষ্ট্র এবং তার মিত্ররা। এর মধ্যে দেশের প্রায় অর্ধেকেরও বেশি জেলার দখল নিয়েছে তালেবান। সশস্ত্র গোষ্ঠীটির এ অগ্রযাত্রা রুখতে হিমশিম খাচ্ছে আফগান সরকার।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *