হাসপাতালের দোতলা থেকে লাফিয়ে পড়লেন করোনা রোগী


করোনা ভাইরাসের যন্ত্রণা সইতে না পেরে বিউটি বেগম (৩৫) নামে এক নারী হাসপাতালের দ্বিতীয় তলা থেকে লাফিয়ে পড়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন বলে খবর পাওয়া গেছে।

শনিবার বিকাল সোয়া ৬ টায় চাঁদপুর ২৫০ শয্যার জেনারেল হাসপাতালে করোনা ইউনিটের করিডোরে এ ঘটনা ঘটে। এতে ওই নারীর ডান পা ভেঙে যায় এবং মেরুদন্ডে আঘাত পেয়ে রক্তাক্ত জখম হয়ে গুরুতর আহত হয়েছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শনিবার বিকালে হঠাৎ করে হাসপাতালে করিডোরের দ্বিতীয় তলা থেকে এক নারী হঠাৎ করে নিচে লাফ দেন। পরে প্রত্যক্ষদর্শীরা তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে জরুরি বিভাগে নিয়ে যায়। হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, আহত বিউটি বেগম করোনা পজিটিভ হয়ে হাসপাতালের দ্বিতীয় তলায় আইসোলেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

আহতের শাশুড়ি জানান, তাদের বাড়ি পার্শ্ববর্তী হাইমচর উপজেলার আলগী গ্রামে। বিউটির স্বামী খোকন মিয়া গত ১১ দিন পূর্বে করোনা পজিটিভ হলে শাশুড়ি তার ছেলের বউকে নিয়ে হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি হন। পারিবারিকভাবে তাদের কোনো ঝামেলা নেই বলেও তিনি জানান। ঘটনার সময় তার ছেলের বউকে বিছানায় রেখে তিনি টয়লেট থেকে ফিরে এসে এই ঘটনা শুনতে পান।

এ বিষয়ে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার রায়হান মোহাম্মদ ওমর ফারুক রূপক বলেন, ঘটনার বিষয়ে আমিও প্রথমে কিছুই বুঝতে পারিনি। রোগী দেখার ফাঁকে জানতে পারি এক নারী রোগী দ্বিতীয় তলা থেকে লাফ দিয়েছেন। তবে তিনি করোনা পজিটিভ রোগী। আমি যতটুকু জানি তিনি করোনায় আক্রান্ত হলেও তার শারীরিক অবস্থা অনেকটা ভালো। তবে করোনার তো বিভিন্ন ইফেক্ট থাকতে পারে। আমি তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা দিয়ে হাসপাতালে ভর্তি দিয়েছি। অন্যান্য চিকিৎসাও চলছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *