বর্জ্য অপসারণে মাঠে নামলেন মেয়র আতিক


কেউ যদি নিজের বাড়ির সামনে কোরবানির পশুর বর্জ্য ফেলে রাখেন তাহলে ডিএনসিসির ময়লার গাড়ি থেকেও তার বাড়ির সামনে আরও অধিক পরিমাণ বর্জ্য ফেলে আসা হবে।

এমন ঘোষণার পর ঈদের দিন রাজধানীর ভাটারা সাঈদ নগরের অস্থায়ী পশুর হাটে বর্জ্য অপসারণ কাজের উদ্বোধন করেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম।

ঢাকা উত্তরের মেয়র আতিকুল ইসলাম নিজেই ধরলেন পে-লোডারের স্টিয়ারিং। শুরু হলো বর্জ্য অপসারণ। সিটি মেয়র প্রতিশ্রুতি দিলেন, আজ রাত ১২টার মধ্যেই সাফ হবে সব বর্জ্য।

মেয়র আতিক বললেন, কোরবানির ঈদে অনেকে তিন দিন ধরে কোরবানি দেন। তবে আজই ৯০ ভাগ লোক কোরবানি দেবেন। এই বর্জ্য আজ রাত ১২টা মধ্যেই পরিষ্কার করে ফেলা হবে।

তিনি বলেন, আমি সার্বিক পরিস্থিতি দেখতে এখন এলাকায় এলাকায় যাব। কোথাও, কারও বাসার সামনে বর্জ্য পড়ে থাকলে তা পরিষ্কার করব না। উল্টো সেই বাসার সামনে ট্রাকে করে বর্জ্য ফেলে দিয়ে আসব। একটি বাড়ি বা বাড়ির মালিকের জন্য নগর ময়লা হতে পারে না। জনগণের দুর্ভোগও সহ্য করা হবে না।

যে ওয়ার্ড আগে বর্জ্য অপসারণের কাজ শেষ করবে, সেই ওয়ার্ডকে বিশেষ পুরস্কার দেওয়া হবে ঘোষণা দিয়ে মেয়র বলেন, ‘করোনার মহামারির মধ্যেও বর্জ্য পরিষ্কারের জন্য পুরো ফোর্স নিয়ে মাঠে নেমেছি। ওয়ার্ডের কাউন্সিলররা মাঠে আছেন। বর্জ্য পরিষ্কারে কাউন্সিলরদের মধ্যে প্রতিযোগিতা শুরু হয়ে গেছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *