সেতু নয় মরণ ফাঁদ


পটুয়াখালীর বাউফলে জনগুরুত্বপূর্ণ একটি সেতু মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে এলাকাবাসী মৃত্যু ঝুঁকি নিয়ে সেতুটি পারাপার হলেও মেরামতের ক্ষেত্রে কর্তৃপক্ষ কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে না।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, বাউফল পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ড (হাওলাদার বাড়ি সংলগ্ন) ও সদর ইউনিয়নের সংযোগ স্থাপনকারী সেতুটি ভেঙে মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে। দীর্ঘদিনেও সেতুটি মেরামত না করায় এলাকাবাসী মৃত্যুঝুঁকি নিয়ে পারাপার হচ্ছেন।

প্রতিদিন এই সেতু পারাপার হতে গিয়ে স্কুলগামী শিক্ষার্থী, মহিলা ও শিশুসহ বৃদ্ধরা দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছেন। এই ব্রিজটি মরণফাঁদে পরিণত হলেও সংস্কার কিংবা পুনর্নির্মাণের ক্ষেত্রে কোনো ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না।

আবদুল মমিন হাওলাদার নামে স্থানীয় এক ব্যক্তি বলেন, এলজিইডির অর্থায়নে ৭-৮ বছর আগে নির্মিত ব্রিজটির কয়েকদিন যেতে না যেতেই স্লাব ধসে পড়ে। এরপর থেকে পূর্ব বিলবিলাস ও পশ্চিম নুরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রায় পাঁচ শতাধিক শিক্ষার্থীসহ এলাকাবাসী প্রতিদিন এই ব্রিজ দিয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হচ্ছেন।

বাউফল সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জসীম উদ্দিন খান বলেন, সেতুটি মেরামত না হওয়ায় এলাকাবাসী সীমাহীন ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন। দ্রুত সেতুটি মেরামত করা প্রয়োজন।

এ বিষয়ে এলজিইডির বাউফল উপজেলা প্রকৌশলী মো. সুলতান হোসেন বলেন, সম্প্রতি উপজেলা পরিষদের রাজস্ব তহবিল থেকে সেতুটি মেরামতের জন্য অর্থ বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। টেন্ডার প্রক্রিয়াও সম্পন্ন করা হয়েছে। শিগগিরই সেতুটির মেরামত কাজ করা হবে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *