বাঘা-চারঘাটে পদ্মার ভাঙন পরিদর্শন করলেন পররাষ্ট্র


রাজশাহী-৬ আসনের সাংসদ ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম পদ্মার ভাঙন পরিদর্শন করেছেন।

রোববার দুপুরে বাঘা ও চারঘাটের নদীভাঙন এলাকা পরিদর্শন করেন।

এ সময় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেন, বর্ষা মৌসুমে প্রতি বছর কমবেশি বন্যা হয়। এই বন্যায় নদীতীরবর্তী এলাকায় ভাঙন দেখা দেয়। এতে করে আতঙ্কে রাত কাটান নদী এলাকার মানুষ। আমি তাদের কথা ভেবে চারঘাট উপজেলার ইউসুফপুর থেকে বাঘার গোকুলপুর পর্যন্ত ১২ কিলোমিটার ঝুঁকিপূর্ণ এলাকায় বাঁধ নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়নের দাবি রেখেছিলাম প্রধানমন্ত্রীর কাছে।

সেই আলোকে গত বছর সেপ্টেম্বর মাসে বর্তমান সরকারের পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুকসহ কয়েকজন বিভাগীয় প্রকৌশলী সরেজমিন নদী এলাকা পরিদর্শন করে সাড়ে ৭২২ কোটি টাকা ব্যয়ে একটি প্রকল্পটি অনুমোদন দেন। তবে চারঘাট সীমানার মধ্যে ১৫ শতাংশ কাজ বৃদ্ধি করা হবে বলে উল্লেখ করেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী।

তিনি আরও বলেন, আমার পরিকল্পনা রয়েছে এই বাঁধ এলাকায় চারটি টি-বাঁধ নির্মাণসহ একাধিক বসার স্থান নির্মাণ করা। এর মাধ্যমে নান্দনিক (স্পট) তৈরি হবে; সেই সঙ্গে তৈরি করা হবে নদীতে নামার জন্য অত্যাধুনিক সিঁড়ি। যাতে করে ভ্রমণপিপাসীরা নদী এলাকায় ঘুরতে এসে আনন্দ উপভোগ করতে পারেন।

পরে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মীরগঞ্জ বিজিপি ক্যাম্পের পাশে মীরগঞ্জ বাজার পরিদর্শন করেন এবং বাজারটি উন্নয়ন করা হবে বলে ব্যবসায়ীদের প্রতিশ্রুতি দেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী জেলা নির্বাহী প্রকৌশলী শফিকুল ইসলাম, চারঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফকরুল ইসলাম, বাঘা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পাপিয়া সুলতানা, চারঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দা সামিরা, বাঘা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম বাবুল, দুই থানার ওসি নজরুল ইসলাম ও জাহাঙ্গীর আলম, পাকুড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মেরাজুল ইসলাম মেরাজ ও মনিগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলামসহ স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দসহ প্রমুখ।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *