পাঁচদিন পর মৃত্যু দুইশর নিচে, আক্রান্ত ১২১৪৮ : স্বাস্থ্য অধিদপ্তর


নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও ১৮৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৭ হাজার ৪৬৫ জনে দাঁড়িয়েছে। এ ছাড়া দেশে নতুন করে আরও ১২ হাজার ১৪৮ জন আক্রান্ত হয়েছে। এ নিয়ে দেশে মোট ১০ লাখ ৮৩ হাজার ৯২২ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছে আট হাজার ৫৩৬ জন। এ নিয়ে দেশে মোট নয় লাখ ১৪ হাজার ৩৪৩ জন করোনা থেকে সুস্থ হলো।

আজ শুক্রবার বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত ১১ জুলাই করোনায় সর্বোচ্চ ২৩০ জনের মৃত্যু হয়েছিল। তারপর থেকে মৃত্যুর সংখ্যাটি আর দুইশর নিচে নামেনি। ১২ জুলাই ২২০, ১৩ জুলাই ২০৩, ১৪ জুলাই ২১০ ও গতকাল ২২৬ জনের মৃত্যু হয়। পাঁচদিন পর আজ মৃতের সংখ্যাটি ১৮৭ জনে এসে দাঁড়িয়েছে।

আজ শুক্রবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের ৬২৭টি ল্যাবে ৪১ হাজার ৯৪৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ৪৫ হাজার ৪৫টি। করোনা শনাক্তের হার ২৮ দশমিক ৯৬ শতাংশ। এই পর্যন্ত নমুনা শনাক্তের হার ১৫ দশমিক ০৮ শতাংশ।

২৪ ঘণ্টায় নতুন ১৮৭ জন মৃত্যুবরণকারীর মধ্যে পুরুষ ১১৩ জন ও নারী ৭৮ জন। এ পর্যন্ত পুরুষ মৃত্যুবরণ করেছে ১২ হাজার ১৬৬ জন ও নারী পাঁচ হাজার ২৯৯ জন। মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে দুজন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে সাতজন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ১১ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ৩০ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ৩৬ জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে ৫৪ জন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের ৩০ জন, ৮১ থেকে ৯০ বছরের ১২ জন, ৯১ থেকে ১০০ বছর পর্যন্ত চারজন এবং ১০০ বছরের ঊর্ধ্বে একজন মৃত্যুবরণ করেছেন।

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ৬৮ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ৩৬ জন, রাজশাহী বিভাগে ১৪ জন, খুলনা বিভাগে ৩৯ জন, বরিশাল বিভাগে আটজন, সিলেট বিভাগে নয়জন, রংপুর বিভাগে ছয়জন ও ময়মনসিংহ বিভাগে সাতজন। এ ছাড়া সরকারি হাসপাতালে ১৪৭ জন, বেসরকারি হাসপাতালে ২৮ জন ও বাসায় ১২ জন মারা গেছেন।

দেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় গত বছরের ৮ মার্চ। ওই বছরের ১৮ জুন তিন হাজার ৮০৩ জন নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার মধ্য দিয়ে লাখ ছাড়িয়েছিল করোনার রোগী। সেদিন পর্যন্ত মোট শনাক্ত ছিল এক লাখ দুই হাজার ২৯২ জন। এ ছাড়া দেশে করোনাভাইরাসে প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটে গত বছরের ১৮ মার্চ।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *