কারাগারে মারা গেলেন স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যার আসামি


নোয়াখালী কারাগারে আব্দুর রব প্রকাশ বাবুল ড্রাইভার (৬০) নামের এক হাজতির মৃত্যু হয়েছে। স্ত্রী তাহমিনা আক্তার মিনাকে (৫৫) কুপিয়ে ও গলা কেটে হত্যার ঘটনায় তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার ভোরে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

মৃত আব্দুর রব বাবুল নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলার কাবিলপুর ইউনিয়নের সাদেকপুর গ্রামের বাসিন্দা।

নোয়াখালী জেলা কারাগারের তত্ত্বাবধায়ক (সুপার) ফণী ভূষণ দেবনাথ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, আব্দুর রব গত ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে কারাগারে ছিলেন। তিনি আগে থেকেই ডায়াবেটিস রোগের ইনসুলিন নিতেন। উচ্চমাত্রার ডায়াবেটিস ও দুই পা ফোলা অবস্থায় গত ১৮ জুন তাকে প্রথমে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখান থেকে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিকেলে পাঠালে বৃহস্পতিবার ভোরে তিনি মারা যান।

তার মৃত্যুর খবর স্বজনদের জানানো হয়েছে, আইনি প্রক্রিয়া শেষে স্বজনদের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হবে বলেও জানান জেল সুপার।

উল্লেখ্য, গত ২৩ ফেব্রুয়ারি পারিবারিক কলহের জেরে স্ত্রী তাহমিনা আক্তার মিনাকে নিজেদের ঘরের বাথরুমে কুপিয়ে ও গলা কেটে হত্যা করে আবদুর রব বাবুল। পরে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় হত্যায় ব্যবহৃত ছুরিসহ তাকে আটক করে পুলিশ। ওই ঘটনায় তার বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে আবদুর রব জেল হাজতে ছিলেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *