জাতীয় দলের নির্ভরযোগ্য এই ব্যাটসম্যনের হঠাৎ এই সিদ্ধান্তে সবাই অবাক

তামিম-সাকিবরা যখন জিম্বাবুয়েতে প্রস্তুত ম্যাচ খেলছে তখন জানা গেল মুশফিকুর রহীম সিরিজের মাঝপথে দেশে ফিরে আসছেন। ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলা হচ্ছে না তার। অথচ আজকের প্রস্তুতি ম্যাচও তার খেলার কথা ছিল।

জাতীয় দলের নির্ভরযোগ্য এই ব্যাটসম্যনের হঠাৎ এই সিদ্ধান্তে সবাই অবাক। পরে জানা গেছে, বিসিবির সায় নিয়েই জিম্বাবুয়ে ছাড়ছেন মুশফিক।

এ বিষয়ে বিসিবি জানিয়েছে, বুধবার হারারে থেকে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হচ্ছেন উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান।

অথচ গতকালকেই খবর ছিল ওয়ানডের পাশাপাশি টি-টোয়েন্টি সিরিজেও তিনি খেলবেন। আজ প্রস্তুতি ম্যাচ খেলছে তামিম-সাকিবরা।

বুধবার এক বিবৃতিতে বিসিবি জানায়, ‘পারিবারিক কারণে মুশফিকুর রহীম জিম্বাবুয়ের সিরিজের বাকি অংশে অনুপস্থিত থাকবেন। আজই মুশফিক ঢাকার উদ্দেশে হারারে ত্যাগ করবেন।’

বিবৃতিতে মুশফিক ও তার পরিবারের গোপনীয়তাকে শ্রদ্ধা করার জন্য অনুরোধ করেছে বিসিবি।

প্রসঙ্গত, জিম্বাবুয়ে ও সফরকারী বাংলাদেশের মধ্যকার তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজ শুরু হবে আগামী ১৬ জুলাই। সিরিজের পরবর্তী দুটি ম্যাচ মাঠে গড়াবে ১৮ ও ২০ জুলাই। 

টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুরু হবে ২৩ জুলাই থেকে। সিরিজের পরবর্তী ম্যাচ দুটি অনুষ্ঠিত হবে ২৫ ও ২৭ জুলাই। সবগুলো ম্যাচই অনুষ্ঠিত হবে হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে।

একমাত্র টেস্টে ব্যাটিংয়ের সময় আঙুলে চোট পাওয়ায় পরে আর ফিল্ডিং করেননি মুশফিক। ২২০ রানে জেতা ম্যাচে প্রথম ইনিংসে তিনি করেন ১১ রান।

মুশফিক জিম্বাবুয়েতে ওয়ানডে খেলে দেশে ফিরে এলে বায়োবাবল পদ্ধতির কারণে অস্ট্রেলিয়া সিরিজে তার খেলা কঠিন হবে। 

গতকালই প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন মুশফিকের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছিলেন। তিনি বলেছিলেন, ‘সে যদি জিম্বাবুয়ে সফরে টি-টোয়েন্টি খেলতে না চায়, তাহলে জৈব সুরক্ষাবলয় থেকে বের হয়ে দেশে ফিরে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে তাকে। সে ক্ষেত্রে অস্ট্রেলিয়া সিরিজে জৈব সুরক্ষাবলয়ে সময়মতো ঢোকা কঠিন হয়ে পড়বে তার জন্য। অস্ট্রেলিয়া সিরিজে তাকে প্রয়োজন। এ কারণে সে সিদ্ধান্ত বদলে ফেলেছে।’

এক দিন পরই জানা গেল, শুধু টি-টোয়েন্টি নয়, জিম্বাবুয়ে সফরের ওয়ানডেও খেলবেন না মুশফিক।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *